সোনারগাঁয়ে নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে ভ্রাম্যমান আদালত - আজকের সংবাদ

সদ্য পাওয়া

Home Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

Post Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

শনিবার, ২১ মার্চ, ২০২০

সোনারগাঁয়ে নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে ভ্রাম্যমান আদালত


সোনারগাঁয়ে নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে ভ্রাম্যমান আদালত





আজকের সংবাদ ডেস্কঃ নারায়নগঞ্জ সোনারগাঁ উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজারে করোনা ভাইরাসের সুযোগ নিয়ে দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়িয়ে ব্যবসা পরিচালনা করার অপরাধে বিভিন্ন দোকানিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা।





শনিবার(২১শে মার্চ)এ অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইদুল ইসলাম এবং অপর দিকে অভিযান পরিচালনা করেন সোনারগাঁ উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি)আল-মামুন ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।





করোনা ভাইরাস আতঙ্কে নিত্যপণ্যের মজুদ সংকট দেখিয়ে সোনারগাঁয়ে নিত্যপণ্য দ্রব্যের মূল্য বেশি রাখার অভিযোগে মোগরাপাড়া চৌরাস্তা বাজার, আনন্দ বাজার,নয়াপুর বাজারসহ অন্যান্য এলাকায় অভিযান চালিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত।





এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইদুল ইসলাম জানান,করোনা ভাইরাস আতঙ্কে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য সংকট দেখিয়ে জনসাধারণের কাছে বিশেষ করে চাউল, পেয়াঁজ,রসুন,আলু ইত্যাদি বেশি মূল্যে বিক্রি করছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। এমন তথ্যের ভিত্তিতে মোগরাপাড়া চৌরাস্তা কাঁচাবাজারে অভিযান পরিচালনা করা হয়।এসময় চাউলের মূল্য বেশি রাখার অপরাধে গোলাম মোস্তফা রাইস এজেন্সিকে ২৫ হাজার,সিরাজ রাইস এজেন্সিকে ১৫ হাজার ও খাঁন রাইস এজেন্সির মালিক আলী আহাম্মেদ খাঁনকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।





এছাড়াও অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে মাংশ বিক্রি করায় আমজাদ হোসেন নামের একজনকে ১০ হাজার টাকা, পিয়াজ ব্যবসায়ি রাসেল কে ১০ হাজার,আওলাদ হোসেনকে ২ হাজার,সেলিম মিয়াকে ৩ হাজার, আলমগীরকে ২ হাজার,জলিলকে ৫ হাজার,আতিক মিয়াকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা মোট ১,০৭,০০০/ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এদিকে বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত দেখে অধিকাংশ অসাধু ব্যবসায়ী দোকান ছেড়ে পালিয়ে যান।





অপর দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকারী সোনারগাঁ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল-মামুন জানান,হাটবাজারগুলোতে দোকানে মূল্য তালিকা না রেখে উচ্চ মূল্যে চাল,পেয়াঁজ ও আলু বিক্রিসহ বিভিন্ন অপরাধে উপজেলার জামপুর ও সাদীপুর ইউনিয়নের তালতলা ও মহজমপুর,নয়াপুর বাজারের চাল ব্যবসায়ী মনির হোসেনকে ৫০ হাজার, পিয়াজ ব্যবসায়ী সোহেলকে ২০ হাজার।তালতলা বাজারের পিয়াজ ব্যবসায়ী রুহুল আমিনকে ৮ হাজার, নাজমুল মিয়াকে ২ হাজার,শরীফ মিয়াকে ১ হাজার ও মহজমপুর বাজারের পিয়াজ ও আলু ব্যবসায়ীকে ৩ হাজার টাকা সর্বমোট ৮৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
সহকারী কমিশনার আল-মামুন বলেন,মূল্যবৃদ্ধির চলমান গুজবে কান না দেয়া,মাত্রারিক্ত মজুদ না করা, করোনা ভাইরাসের বিষয়ে সচেতনতামূলক পরামর্শ প্রদান করা,বিদেশ ফেরত লোকদের সতর্ক অবস্থায় থেকে ঘড় থেকে না বেড় হওয়া সহ বিভিন্ন পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এর ব্যত্তয় ঘঠলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আইনের আওতায় আনা হবে। আমাদের এ অভিযান উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের হাটবাজারে চলমান থাকবে।





এসময় উপস্থিত ছিলেন তালতলা তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আহসানউল্লাহ,এস আই আমিনুল ইসলাম, এএসআই রিয়াজ উদ্দিনসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্য।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭