বিদায়ী লগ্নে নিজে কেঁদে অন্যকেও কাঁদিয়ে গেলেন এসপি হারুন - আজকের সংবাদ

সদ্য পাওয়া

Home Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

Post Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

বৃহস্পতিবার, ৭ নভেম্বর, ২০১৯

বিদায়ী লগ্নে নিজে কেঁদে অন্যকেও কাঁদিয়ে গেলেন এসপি হারুন


বিদায়ী লগ্নে নিজে কেঁদে অন্যকেও কাঁদিয়ে গেলেন এসপি হারুন





আজকের সংবাদ ডেস্কঃ নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ লাইন্সে বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন নারায়ণগঞ্জ জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।





বহুল আলোচিত নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার (এসপি) হারুন অর রশীদকে বদলি করে পুলিশ সদর দফতরের পুলিশ সুপার (টিআর) করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার(০৭নভেম্বর) দুপুরে তাকে বিদায়ী সংবর্ধনা দেয়া হয়।





বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ তার বক্তব্যে বলেন সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কাজ করতে গিয়ে সমালোচিত হন। তিনি বলেন, সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে কাজ করতে গিয়ে সমালোচিত হয়েছি। তদন্তে এটি বের হবে ইনশাআল্লাহ।





পারটেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান এম এ হাশেমের ছেলে শওকত আজিজের কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগের বিষয়ে এসপি হারুন বলেন, আমার কোনো সহকর্মীর দিকে কেউ পিস্তল তাক করবে, সেটা তো হতে পারে না। তাই ওই ব্যক্তি কত বড় সম্পদশালী বা শক্তিশালী সেটা আমি দেখিনি। কিন্তু বলা হয়েছে চাঁদা দাবি করেছি। মূল বিষয় হলো মামলা হয়েছে, পুলিশ রেইড দিয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার (শওকত আজিজের) ছেলেকে আনা হয়েছিল, মা স্বেচ্ছায় এসেছে। এগুলো আপনারা জানেন। তবুও বিদায়বেলায় আমি বললাম।’





এসপি হারুন বলেন, এটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। কথায় নয়, মন থেকে যেটা চেয়েছি সেটাই করেছি। নারায়ণগঞ্জে পুলিশের ইমেজ বৃদ্ধি পেয়েছে।





তিনি বলেন, ‘আমি নারায়ণগঞ্জে থাকা অবস্থায় মাদক, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ, ভূমিদস্যুর বিরুদ্ধে কাজ করেছি। নারায়ণগঞ্জে দুই হাজার পুলিশ সদস্য কাজ করছেন। কিছু ভুল থাকতেই পারে আমাদের। এরপরও যারা ভুল করেছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর অ্যাকশন নিয়েছি। সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজের পক্ষে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, এমপি-মন্ত্রী কেউ তদবির করেননি। এটা আমাদের ভালো লেগেছে।আমাদের সহযোগিতা করার জন্য আপনাদের সবাইকে ধন্যবাদ।





বক্তব্যের একপর্যায়ে তিনি আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন,সেই সঙ্গে মঞ্চে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি। তার কান্না দেখে আবেগাপ্লুত হন পুলিশের অন্যান্য সব কর্মকর্তারা।





এসময় বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মোঃজসিম উদ্দিন,জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন,ব়্যাব-১১ এর সিইও কর্নেল কাজী শামসের উদ্দিন,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মনিরুল ইসলাম,আব্দুল্লাহ আল মামুন,নূরে আলম, সুবাস সাহা,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(খ) অঞ্চলের খোরশেদ আলম ।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭