সোনারগাঁয়ে জমির বায়নাকৃত পাওনা টাকাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষ - আজকের সংবাদ

সদ্য পাওয়া

Home Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

Post Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০

সোনারগাঁয়ে জমির বায়নাকৃত পাওনা টাকাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষ


সোনারগাঁয়ে জমির বায়নাকৃত পাওনা টাকা কে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষ





মোঃ নুর নবী জনিঃনারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের নয়াগাঁও এলাকায় জমির বায়নাকৃত পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষ। সংধর্ষে উভয় পক্ষের ৬জন আহত হয়েছে।





গত শনিবার সন্ধ্যায় নয়াগাঁও এলাকার মৃত আঃ মালেকের ছেলে আলাউদ্দিন (৬১) স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে নিয়ে একই এলাকার মৃত আবু ছিদ্দিকের ছেলে মো. শাহাবুদ্দিনের পৈত্রিক সম্পত্তির দুধঘাটা মৌজার ১১.৫০ শতাংশ জমির জন্য গত ০৮-০৮-২০১৯ইং তারিখে দুইবারে স্যোশাল ইসলামি ব্যাংকের সোনারগাঁ শাখার (চেক নং ৬২৩৭৯৯৪) চেকের মাধ্যমে এবং নগদ বায়না করা ১৭ লক্ষ টাকা চাইতে গেলে এ ঘটনা ঘটে।





বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলাউদ্দিন জানান, সোনারগাঁয়ের আলোচিত দ্বীন ইসলাম হত্যা মামলা থেকে বাঁচতে শাহাবুদ্দিন আমার ও আমার পরিবারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করছে। সে তার পৈত্রিক সম্পত্তির দুধঘাটা মৌজার ১১.৫০ শতাংশ জমির জন্য আমার কাছ থেকে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সামনে দুইবারে ১৭ লক্ষ টাকা বায়না বাবদ নেয়। পরবর্তীতে আমি ঐ জমিতে ৫ লক্ষ টাকার বালু ভরাট করি কিন্তু পতারক শাহাবুদ্দিন আমার বায়না করা জমি আল মোস্তফা গ্রুপের কাছে বিক্রি করে দেয়। বছর দেড়েক হওয়ার পরও আমার টাকা না দেয়ায় আমি এলাকার লোকজন নিয়ে আমার বায়না টাকা চাইতে গেলে তার ছেলে মো. শাহ আলী (১৮), একই এলাকার মোবারকের ছেলে মো. শাহীন (২৬), মৃত ওয়ারিসের ছেলে আব্দুস সাত্তার (৫৫) ও তার স্ত্রী মোসাঃ আসমা বেগম (৫০) সহ পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে স্থানীয় সন্ত্রাসীদের দিয়ে আমাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে আমি ও আমার ছেলে নুরনবীসহ আরো ৩জনকে মারধর করলে আশেপাশের মানুষের ডাক চিৎকারে আমরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে আসি।





আহতদের সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় হাজ্বী আলাউদ্দীন ৫জনের নাম উল্লেখ্য ও ৪/৫জনকে অজ্ঞাত করে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।





উল্লেখ্য যে, নয়াগাঁওয়ের আলাউদ্দিনের ভাগিনা সোনারগাঁয়ের আলোচিত দ্বীন ইসলাম হত্যা মামলার ২নং আসামী শাহাবুদ্দিন ও ৪নং আসামী তার ভাগিনা একই এলাকার আলেক মিয়ার ছেলে রাজু দীর্ঘদিন যাবত হত্যা মামলা তুলে নিতে হুমকি দিয়ে আসছিলো। তারই পরিপ্রেক্ষিতে তাদের উপর এই হামলা চালানো হয়েছে বলে জানান স্থানীয়রা।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে অভিযোগের তদন্ত কর্মকর্তা সোনারগাঁ থানা পুলিশের এসআই ইয়ায়ুর রহমান জানান, ঘটনা তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। ঘটনা তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।





শাহাবুদ্দিনের স্ত্রী আকলিমা বেগম তদন্ত কর্মকর্তা এসআই ইয়ায়ুরকে জানান, অভিযোগের বিবাদীরা আলাউদ্দিন সাহেবের বায়নাকৃত ১৭ লক্ষ টাকা ফেরত দিতে ইচ্ছুক। খুব শীঘ্রই দুইপক্ষ বিষয়টি সমাধান করবেন।





কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭