সামাজিক দূরত্বের তোয়াক্কা না করেই সাড়ে ৩ শতাধিক মানুষ নিয়ে ভুড়িভোজ করলেন ইউএনও - আজকের সংবাদ

সদ্য পাওয়া

Home Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

Post Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

শনিবার, ২৭ জুন, ২০২০

সামাজিক দূরত্বের তোয়াক্কা না করেই সাড়ে ৩ শতাধিক মানুষ নিয়ে ভুড়িভোজ করলেন ইউএনও






সামাজিক দূরত্বের তোয়াক্কা না করেই সাড়ে ৩ শতাধিক মানুষ নিয়ে ভুড়িভোজ করলেন ইউএনও





সোনারগাঁ প্রতিনিধি: করোনা মহামারীর ভয়ংকর পরিস্থিতিতে নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁয়ে উপজেলা প্রশাসন ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের যৌথ উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্মসূচি শেষে সাড়ে ৩ শতাধিক মানুষের ভুড়িভোজের আয়োজন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাইদুল ইসলাম।





শনিবার (২৭জুন) সকাল থেকে দলে দলে লোকজন বৈদ্যেরবাজার খেয়াঘাটে ভীড় করে। তাদেরকে জিজ্ঞেস করলে জানা যায়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদুল ইসলামের দাওয়াতে অংশ নিতে স্থানীয় ২৬টি সংগঠন থেকে তারা নুনেরটেকের মায়াদ্বীপ যাচ্ছেন।





সকাল থেকে সন্ধ্যার আয়োজনে বৃক্ষরোপন কর্মসূচি ছাড়াও মেহমানদের জন্য ছিল দলীয় ফটোশুট, গোসল, নাচ ও গানের ব্যবস্থা। এছাড়া অনুষ্ঠানে আগত মেহমান ও আয়োজকদেরকে জন্য বিশাল প্যান্ডেল করে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।





অপরদিকে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে স্থানীয় সংগঠন গুলোকে সঙ্গে নিয়ে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচির আয়োজন সামাজিক দূরত্ব ভঙ্গ করার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হলে সচেতন মহল এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন।





অনুষ্ঠানে স্থানীয় ২৬টি সংগঠনের সাথে কর্মসূচি পালনে কোন জায়গায়ই সামাজিক দুরত্ব ও মাস্ক ব্যবহারে সচেতনতা লক্ষ্য করা যায়নি। দলীয় বিভিন্ন ছবিতে দেখা যায় ইউএনও নিজেই মাস্ক ব্যবহারে ছিলেন উদাসীন।





মেঘনা নদী বেষ্ঠিত চরাঞ্চল নুনেরটেক (মায়াদ্বীপ) এলাকায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সামাজিক দূরত্ব না মেনে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচির আয়োজন করে সাড়ে তিন শতাধিক মানুষের সাথে অংশগ্রহণ করায় স্থানীয় সচেতন মহল ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসক, জনপ্রশাসন ও প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।





উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাইদুল ইসলামের নিজস্ব আর্থিক সহায়তায় এতো বড় আয়োজনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ছাড়া অন্য কোন প্রশাসনিক কর্মকর্তার উপস্থিতি দেখা যায়নি।





বৃক্ষ রোপন কর্মসূচিতে একাধিক গণমাধ্যম কর্মী উপস্থিত ছিলেন। তাদের প্রতি বৃক্ষ রোপন কর্মসূচির পরবর্তী ভুড়িভোজ ও প্যান্ডেলের ছবি তোলার উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন ইউএনও। এর আগেও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাইদুল ইসলামের বিরুদ্ধে অফিস সহকারীকে অনৈতিক সুবিধা প্রদান, ক্ষমতার অপব্যবহার করার অভিযোগ উঠলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে তা থেকে নিজেকে গুটিয়ে নেন তিনি।





এ বিষয়ে সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইদুল ইসলামের মুঠোফোনে (০১৭০৮-৪৪২২৫৮) যোগাযোগ করতে গেলে তিনি ক্ষুদেবার্তায় ব্যস্ত থাকার কথা জানান।





এবিষয়ে মুঠোফোনে জেলা প্রশাসক মোঃ জসিম উদ্দিনের সাথে কথা হলে তিনি জানান, আমি সোনারগাঁওয়ে বৃক্ষরোপনের বিষয়টা জানি কিন্তু বৃক্ষরোপন পরবর্তী  সাড়ে ৩ শতাধিক মানুষের ভুড়িভোজ সম্পর্কে অবগত নই। সামাজিক দূরত্ব বজায় না রাখায় তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি আরো জানান, সামাজিক দূরত্ব সবাইকে মানতে হবে। না মানলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।










কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭