র‌্যাব-১১র অভিযানে কারখানা ও রেস্টুরেন্টের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন,গ্রেফতার-৪ - আজকের সংবাদ

সদ্য পাওয়া

Home Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

Post Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

সোমবার, ২০ জানুয়ারী, ২০২০

র‌্যাব-১১র অভিযানে কারখানা ও রেস্টুরেন্টের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন,গ্রেফতার-৪


র‌্যাব-১১র অভিযানে কারখানা ও রেস্টুরেন্টের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন,গ্রেফতার-৪।





আজকের সংবাদ ডেস্কঃ মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় র‌্যাব-১১ এর অভিযানে কারখানা ও রেস্টুরেন্টের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।





গতকাল সোমবার( ১৯ জানুয়ারি)বিকেলে গজারিয়া থানাধীন জামালদি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এই অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়,এ সময় অপরাধে জড়িত ৪ জনকে গ্রেফতার এবং কারখানাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।





র‌্যাব-১১ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ জসিম উদ্দীন চৌধুরী, পিপিএম বলেন, র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইন শৃংখলার সামগ্রিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। র‌্যাব শুরু থেকে যে কোন ধরনের অপরাধ, প্রতারনামূলক অপরাধ প্রতিরোধ এবং সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রকে সনাক্ত ও গ্রেফতারের জন্য নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে থাকে।





এরই ধারাবাহিকতায় গোপন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে অাজ বিকালে র‌্যাব-১১র বিশেষ আভিযানে মুন্সীগঞ্জ জেলার গজারিয়া থানাধীন জামালদি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিয়ে মার্বেল কারখানা ও রেস্টুরেন্ট চালানোর অপরাধে ০৪ জন গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো কারখানার মালিক মোঃ রিপন প্রধান (৩৬),প্রধান মিস্ত্রি মোঃ খলিলুর রহমান (৩০), গ্যাস লাইন মিস্ত্রি মোঃ মুরাদ হোসেন (৩২) ও সহকারী মিস্ত্রি মোঃ নজরুল ইসলাম (৪০)। পরবর্তীতে তিতাস গ্যাস কোম্পানী কর্তৃক উক্ত মার্বেল কারখানা ও রেস্টুরেন্টের গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।
গ্রেফতারকৃতদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় যে, গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন যাবৎ পরস্পর যোগসাজসে তিতাস গ্যাস কোম্পানীর প্রদত্ত মেইন লাইনে ছিদ্র করে অভিনব কৌশলে অবৈধভাবে গ্যাস চুরি করে মার্বেল কারখানা চালিয়ে আসছে। গ্রেফতারকৃত রিপন @কাইল্যা রিপন উক্ত অবৈধ গ্যাস সংযোগের মূলহোতা। মার্বেল কারখানা ছাড়াও তার মালিকানাধীন দারুচিনি নামক একটি রেস্টুরেন্টে দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিয়ে ব্যবসা করে আসছে। এভাবে তারা প্রতি বছর প্রায় লক্ষ লক্ষ টাকার গ্যাস চুরি করে রাষ্ট্রায়ত্ত সম্পত্তির ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে আসছে। পরবর্তীতে তিতাস গ্যাস কোম্পানী কর্তৃপক্ষ কর্তৃক উক্ত মার্বেল কারখানা ও রেস্টুরেন্টের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। উলে­খ্য তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ কর্তৃক ইতোপূর্বে উক্ত মার্বেল কারখানা ও রেস্টুরেন্টের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বেশ কয়েকবার বিচ্ছিন্ন করা হলেও পুনরায় তারা অবৈধ গ্যাস সংযোগ স্থাপন করে।





গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে মুন্সীগঞ্জ জেলার গজারিয়া থানায় আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭