সোনারগাঁয়ে দ্বীন ইসলাম হত্যার অন্যতম আসামি গ্রেফতার - আজকের সংবাদ

সদ্য পাওয়া

Home Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

Post Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৯

সোনারগাঁয়ে দ্বীন ইসলাম হত্যার অন্যতম আসামি গ্রেফতার


সোনারগাঁয়ে দ্বীন ইসলাম হত্যার অন্যতম আসামি গ্রেফতার।





আজকের সংবাদ ডেস্কঃ সোনারগাঁয়ে দ্বীন ইসলাম হত্যার ঘটনায় রাজু নামের এক জনকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপার্দ করেছে জনতা।
মঙ্গলবার(১২নভেম্বর) সন্ধ্যার দিকে উপজেলার মোগরাপাড়া চৌরাস্তা এলাকা হতে তাকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে সোনারগাঁ থানা পুলিশের কাছে সোপার্দ করে জনতা।
সোনারগাঁ থানার উপ-পরিদর্শক রাজু মন্ডল বলেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে মোগরাপাড়া চৌরাস্তা এলাকা থেকে দ্বীন ইসলাম হত্যার সাথে জরিত সন্দেহে রাজু নামের এক জনকে আটক করে পুলিশে খবর দেয় এলাকাবাসী। পরে ঘটনা স্থলে পৌঁছে জনতার হাত থেকে রাজুকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসি। সে দ্বীন ইসলাম হত্যার সাথে প্রত্যক্ষভাবে জরিত।
উল্লেখ্য,গত ৪ অক্টোবর উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের নয়াগাঁও এলাকার মদিনাতুল উলুম মাদ্রাসার সামনে ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে নয়াগাঁও গ্রামের সালাউদ্দিনের ছেলে দ্বীন ইসলামের সাথে একই গ্রামের আসাদুলের ছেলে আহসানুল্লাহর কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে আহসানুল্লাহ,শাহাবুদ্দিন,আলী হোসেন, শাহীন,এরশাদ উল্লাহ সহ ৫/৬ দ্বীন ইসলামকে এলোপাথারী পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে। এসময় আশপাশের লোকজন আহত দ্বীন ইসলামকে উদ্ধার করে প্রথমে একটি স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে গত ৮ অক্টোবর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দেন। ১৩ অক্টোবর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিসক মহাখালী আইসিডিডিআরবি(কলেরা হাসপাতালে)নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। সেখান থেকে ঐদিন সন্ধ্যায় ছাড়পত্র দিলে তাকে বাড়ি নিয়ে আসা হয়। ১৪ অক্টোবর রাতে সে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে দ্বীন ইসলামের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় দ্বীন ইসলামের বড় ভাই ইলিয়াস মিয়া বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
এ ঘটনা পুলিশ শাহীন নামের এক জনকে গ্রেফতার করে
মামলার অন্যান্য আসামীরা হলো,সোনারগাঁ উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের নয়াগাঁও গ্রামের এরশাদ উল্লাহর ছেলে আহসান উল্লাহ, মৃত আবু সিদ্দিকের ছেলে শাহাবুদ্দিন, সোনা মিয়ার ছেলে আলী হোসেন, মোবারক হোসেনের ছেলে শাহীন ও মৃত আবু সিদ্দিকের ছেলে এরশাদ উল্লাহ। এছাড়াও ৫/৬ জনকে অজ্ঞাত নামা আসামী করা হয়েছে। এর আগে দ্বীন ইসলাম হত্যার ঘটনার সাথে জরিত শাহীন নামের এক আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধৃত রাজু নয়াগাঁও গ্রামের আলেক মিয়ার ছেলে।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭