ছেলেধরা গুজব নিয়ে মসজিদে মসজিদে সচেতনতা মুলক আলোচনা - আজকের সংবাদ

সদ্য পাওয়া

Home Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

Post Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

শুক্রবার, ২৬ জুলাই, ২০১৯

ছেলেধরা গুজব নিয়ে মসজিদে মসজিদে সচেতনতা মুলক আলোচনা


ছেলেধরা গুজব নিয়ে মসজিদে মসজিদে সচেতনতা মুলক আলোচনা





আজকের সংবাদ ডেস্কঃ সাম্প্রতিক সময়ে ছেলেধরা গুজব চরম আকার ধারণ করেছে সারা দেশে। ইতোমধ্যে ছেলেধরা সন্দেহে সারা দেশে গণপিটুনিতে কয়েকজন নিরপরাধ লোক মারা গেছে। মৃত ব্যাক্তিদের মধ্য কয়েকজন ছিল শারীরিক ও মানসিক প্রতিবন্ধি। আবার নিজ সন্তানকে স্কুলে ভর্তি করাতে গিয়েও ছেলেধরা সন্দেহে নিহত হয় বাড্ডা এলাকার এক নারী।





গত শনিবার(২০জুলাই) সিদ্ধিরগঞ্জে নিজ মেয়েকে দেখতে যেয়ে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনির শিকার হয়ে মারা যায় বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধি সিরাজ (৩৪) নামে এক যুবক। এদিকে, ওইদিনই ছেলেধরা সন্দেহে  আরেক গণপিটুনির ঘটনায় শারমিন (২৫) নামে এক মানসিক প্রতিবন্ধী আহত হয়।





এইসব ঘটনা এড়াতে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান এক ব্যতিক্রমী উদ্যেগ গ্রহণ করেছেন।





তিনি নিজ উদ্যোগে পুরো থানা এলাকায় ছেলেধরা গুজব প্রতিরোধে মাইকিংয়ের ব্যবস্থা করেছেন। এমনকি, নিজেও গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে পরেছেন বিভিন্ন এলাকায়। নিজেই মাইকিং করে সচেতনতা সৃষ্টির চেষ্টা করছেন। এছাড়াও পুলিশের এক একজন কর্মকর্তাকে এক এক এলাকায় পাঠিয়ে স্কুল,কলেজ, মাদ্রাসা ও মসজিদ গুলোতে সচেতনতা মুলক বক্তব্য দিয়ে জনগনকে সচেতন ও লিফলেট বিতরণ করছেন।





শুক্রবার(২৬জুলাই)জুম্মার নামাজের সময় সোনারগাঁয়ের প্রতিটি মহল্লার মসজিদগুলোতে জনসচেতনতা মুলক বক্তব্যে বলা হয় "ছেলেধরা নিছকই একটি গুজব"এই গুজবে কান দিয়ে আইন হাতে তুলে নেয়া দন্ডনীয় অপরাধ। তাই কেউ আইন হাতে তুলে নিবেন না। সন্দেহ হলে পুলিশকে জানানোর অনুরোধ রইলো। ২৫-৩১ জুলাই পর্যন্ত পুলিশ সদরদপ্তর সচেতনতা মুলক সপ্তাহ উল্লেখ করেছে। এই ধারাবাহিকতায় সোনারগাঁয়ের থানা এলাকায় এই প্রচারনা চালানো হচ্ছে। সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার গাড়িসহ পুলিশের অন্যান্য গাড়িতে ছেলেধরা গুজব প্রতিরোধমুলক ব্যনার লাগিয়ে বিভিন্ন এলাকায় মাইকিংয়ের মাধ্যমে প্রচার চালানো হচ্ছে।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭