জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া রাবার বুলেট নিক্ষেপ - আজকের সংবাদ

সদ্য পাওয়া

Home Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

Post Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

শুক্রবার, ২৬ জুলাই, ২০১৯

জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া রাবার বুলেট নিক্ষেপ


জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া রাবার বুলেট নিক্ষেপ





আজকের সংবাদ ডেস্কঃসোনারগাঁয়ে চৈতি কম্পোজিটের সাথে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে নিরাপত্তা কর্মীদের সাথে স্থানীয় এলাকাবাসী ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া।





শুক্রবার(২৬জুলাই)সকাল ৭টার দিকে চৈতি কম্পোজিটের নিরাপত্তা কর্মীদের সাথে স্থানীয় এলাকাবাসীর ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় চৈতি কম্পোজিটের নিরাপত্তাকর্মীরা স্থানীয় লোকজনের উপর রাবার বুলেট নিক্ষেপ করলে এতে ৫ জন আহত হয়েছে।
আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্স ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এ সময় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়লে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে।এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।





স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়,ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে টিপর্দী এলাকার চৈতি কম্পোজিট লিমিটেড এর ছোট শিলমান্দি মৌজার একটি বিরোধপূর্ন জমিতে দেয়াল নিয়ে টিপর্দীর জামাল উদ্দিনের ছেলে শাকিল তার লোকজন দিয়ে বাঁধা দেয় এবং চৈতি কম্পোজিটের দেয়া দেয়াল ভেঙ্গে ফেলে। এতে চৈতি কম্পোজিটের নিরাপত্তা কর্মীরা বাঁধা দিলে দুপক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। পরে স্থানীয়রা একত্রিত হয়ে পুলিশ ও নিরাপত্তা কর্মীদের ইট পাটকেল ছুড়ে ধাওয়া দেয় এ সময় চৈতির নিরাপত্তাকর্মীরা রাবার বুলেট নিক্ষেপ করলে শাকিল, তানজিল,মিজু,তারেকসহ ৭ জন আহত হয়।
সোনারগাঁ থানা পুলিশের সুষ্ট সমাধান করে দিবে এ আশ্বাসে স্থানীয়রা শান্ত হয়।





এ ব্যাপারে আহত জাকিল জানায়,আমার পৈত্রিক বসতবাড়ি জোর পূর্বক দখল করে প্রাচীর নির্মাণ কাজ করতে যায় চৈতি কম্পোজিটের লোকজন,এ সময় আমি সহ আমার লোকজন নির্মাণ কাজে বাঁধা দিলে তারা নির্মাণ কাজ বন্ধ রেখে,চৈত গ্রুপের মালিক আবুল কালামের ভাড়াটে লোকজন সোনারগাঁ থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে সন্ত্রাসীরা নির্মাণ কাজ আবারোও শুরু করে। নির্মাণ কাজ পুনরায় শুরু করায় আমি ও আমার লোকজন ফের বাঁধা দিতে গেলে পুলিশের উপস্থিতিতে আবুল কালামের ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা আমাদের উপর ছোঁড়া গুলি ছুড়ে,এসময় পুলিশ নীরব ভূমিকা পালন করে উল্টো সন্ত্রাসীদের পক্ষ নেয়।





এ ব্যাপারে সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, দু’পক্ষের সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এনেছি। এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭