গলাচিপায় পুত্রবধূর অত্যাচারে শ্বশুড়-শ্বাশুড়ী বাড়ী ছাড়া - আজকের সংবাদ

সদ্য পাওয়া

Home Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

Post Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

শনিবার, ১ জুন, ২০১৯

গলাচিপায় পুত্রবধূর অত্যাচারে শ্বশুড়-শ্বাশুড়ী বাড়ী ছাড়া


গলাচিপায় পুত্রবধূর অত্যাচারে শ্বশুড়-শ্বাশুড়ী বাড়ী ছাড়া





মোঃনজরুল ইসলাম,পটুয়াখালীঃ পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা উপজেলার বলই বুনিয়া গ্রামে পুত্রবধূর অত্যাচারে শ্বশুড়-শ্বাশুড়ী বাড়ী ছাড়া হওয়ার চাঞ্চল্যকর খবর পাওয়া গেছে৷ সরেজমিনে জানা গেছে, উক্ত উপজেলার ২নং গোলখালী ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের বলই বুনিয়া গ্রামের আঃ মন্নান খান জানান, তার পুত্র রব্বান খানের সাথে পার্শ্ববর্তী বরগুনা জেলার আমতলী উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের টেপুরা গ্রামের মোঃ কাছেম আলীর মেয়ে মোসাঃ আফরোজা আক্তার (আজেনা'র) সাথে সামাজিক ভাবে ইসলামী শরিয়ত অনুযায়ী দীর্ঘ চার বছর পূর্বে বিবাহ হয়।আজেনার স্বামী রব্বান খান ইটের ভাটায় কাজ করার সুবাদে ঢাকায় থাকেন, আর আজেনা তার শশুর শাশুড়ীর সাথে শশুর বাড়িতে থাকেন। আজেনার স্বামী রব্বান খান বাড়িতে না থাকার সুযোগে আজেনার সাথে মামা শশুর রিয়াজ হাওলাদার এর অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে উঠে। কিছু দিন কাটতে না কাটতেই শুরু হয় পুুত্রবধু আজেনার বেপরোয়া চলাফেরা আর শশুর শাশুড়ী সাথে উদ্ভট আচরণ।
পরবর্তীতে গত ৪ এপ্রিল রাত অনুমান নয়টার দিকে আজেনা তার মামা শশুর রিয়াজ হাওলাদার এর সাথে অনৈতিক কর্মকান্ডে লিপ্ত থাকা অবস্থায় ধরা পরে যায় রিয়াজ এর স্ত্রী ও আজেনার মামী শাশুড়ী মোসাঃ মরিয়ম বেগমের হাতে।





এ সময় ঘটনাস্থলে মরিয়ম বেগমের সাথে উপস্থিত ছিল উক্ত এলাকার হালিম মৃধার ছেলে মাসুদ, আব্দুর রসিদ খানের ছেলে মিরাজ।





এনিয়ে পুত্রবধূ আজেনা ও শশুর-শাশুড়ীর সাথে সম্পর্কের অবনতি ঘটে। একপর্যায়ে পুত্রবধূ আজেনার আত্যাচার-নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে নিজের ঘর ছেড়ে অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নেয় শশুর-শাশুড়ী। এভাবেই শশুর- শাশুড়ী অন্যের বাড়িতে থেকে মানবেতর জীবনযাপন করছেন।





আমাদের এ প্রতিনিধিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে গ্রামবাসী অনেকেই জানায়, বিয়ের কিছু দিন পর থেকেই আজেনা বেপরোয়া হয়ে উঠে৷ শ্বশুড়-শ্বাশুড়ীসহ গ্রামবাসীকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করার কারণে সম্মানের ভয়ে কেউ তার অনৈতিক কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করার সাহস পায় না৷





উল্লেখ্য, ওই পুত্রবধূ আজেনা তার অনৈতিক সম্পর্কের কথা গ্রামবাসীদের মধ্যে জানাজানি হলে পুত্রবধূ আজেনা বীগত কয়েকবার আত্মহত্যার চেষ্টাও করে।





এ ঘটনার বিষয়ে উক্ত ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ নাসির উদ্দিন হাওলাদার জানান, বিষয়টা তিনি জানেন এবং কয়েক বার সমাধানের জন্য দুই পরিবারকে নিয়ে বসা হয়েছিলো অন্য দুই জন শালিশ উপস্থিত না থাকায় বিষয়টা সমাধান করা সম্ভব হইনি তবে ঈদের পরে দুই পক্ষকে ডেকে সমাধান করে দিবো।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭