নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের এএসআই পরিচয় দিয়ে রেকার অপারেটরের ব্যাপক চাঁদাবাজি - আজকের সংবাদ

সদ্য পাওয়া

Home Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

Post Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

সোমবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৯

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের এএসআই পরিচয় দিয়ে রেকার অপারেটরের ব্যাপক চাঁদাবাজি


নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের এএসআই পরিচয় দিয়ে রেকার অপারেটরের ব্যাপক চাঁদাবাজি





আজকের সংবাদ ডেস্কঃ  নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের এএসআই পরিচয় দিয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মদনপুর বাস স্ট্যান্ড এলাকায় অবৈধভাবে রাস্তায় চলাচলরত ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সা ও সিএনজি  থেকে চাঁদা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে রেকার অপারেটর সাইদুল ইসলামের বিরুদ্ধে।





মহাসড়কে ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সা ও সিএনজি চলাচল নিষেধ থাকার সুযোগ নিয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মদনপুর বাস স্ট্যান্ড এলাকায় কর্মরত ট্রাফিক ইন্সপেক্টর (টিআই) মনিরুল ইসলামের শেল্টারে রেকার অপারেটর সাইদুল ইসলাম নিজেকে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের এএসআই পরিচয় দিয়ে প্রতিনিয়তই বিভিন্ন পরিবহনে চাঁদাবাজি করছে বলে অভিযোগ।





সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মদনপুর বাস স্ট্যান্ডে রেকার অপারেটর সাইদুল ইসলাম সে নিজেকে জেলা পুলিশের এএসআই পরিচয় দিয়ে স্থানীয় রিক্সার লাইনম্যান আবুল হোসেনের সহয়তায় ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সার চালকদের কাছ থেকে ১৫০০ থেকে ২০০০ টাকা করে আদায় করছেন। এ সময় রেকার অপারেটর সাইদুল ইসলামের কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মদনপুর পুলিশ বক্সের টিআই মনিরকে ম্যানেজ করে তারা এসব কাজ করছেন। পরবর্তীতে তিনি কেন নিজেকে জেলা পুলিশের এএসআই পরিচয় দিয়ে টাকা আদায় করছেন এবং তাদের সঙ্গে কোন পুলিশ সদস্য নেই কেন? তিনি এভাবে টাকা আদায় করতে পারেন কিনা? এসব প্রশ্ন করলে তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেন এবং দেখে নেয়ার হুমকি দেন।
ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে মদনপুর পুলিশ বক্সে কর্মরত টিআই মনিরুল ইসলাম রেকার অপারেটর সাইদুলের দেয়া বক্তব্য অস্বীকার করে বলেন, রেকার অপারেটর দ্বারা কোন অভিযান পরিচালনা করা হয় না, সঙ্গে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের এএসআই আনোয়ারের থাকার কথা।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সকাল দশটা থেকে মদনগঞ্জের সড়ক থেকে যেখানে অটোরিক্সা , সিএনজি চলাচলে বাঁধা নেই সেখান থেকে ২৫টি অটোরিক্সা ও সিএনজি ধরে এনে মদনপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহজাসড়কে পুলিশ বক্সের সামনে গাড়ি গুলোকে রেকারে দেয়া হয় এবং ১৫০০ থেকে ২০০০ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭