ভট্টপুর স্কুলে লাল ও সবুজ রঙের ড্রেস নির্ধারণের জন্য ইউএনও’র কাছে ৩’শ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আবেদন - আজকের সংবাদ

সদ্য পাওয়া

Home Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

Post Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই, ২০১৯

ভট্টপুর স্কুলে লাল ও সবুজ রঙের ড্রেস নির্ধারণের জন্য ইউএনও’র কাছে ৩’শ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আবেদন


ভট্টপুর স্কুলে লাল ও সবুজ রঙের ড্রেস নির্ধারণের জন্য ইউএনও’র কাছে ৩’শ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আবেদন





আজকের সংবাদ ডেস্কঃ সোনারগাঁয়ের ভট্টপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে লাল ও সবুজ রঙের সমন্বয়ে আকর্ষনীয় স্কুল ড্রেস নির্ধারনের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অঞ্জন কুমার সরকারের কাছে বিদ্যালয়ের তিন শতাধিক ছাত্রছাত্রী ও তাদের অভিভাবকরা লিখিত আবেদন করেছেন।
বৃহস্পতিবার(১১ জুলাই)সকালে তারা এ আবেদন করেন।
আবেদনে সূত্রে জানা যায়, ভট্টপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা দীর্ঘদিন যাবত নীল-সাদা রঙের স্কুল ড্রেস পড়ে আসছিলো। এই ড্রেসটি বর্তমানে উপজেলার বিভিন্ন স্কুলের ড্রেস হওয়ায় ভট্টপুর স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি, শিক্ষক, অভিভাবক ও ছাত্রছাত্রীদের দাবির প্রেক্ষিতে সভাপতি আবু নাইম ইকবাল ড্রেস পরিবর্তনের উদ্যোগ নেন। 





এসময় ছাত্রছাত্রীদের মাঝে যাতে দেশপ্রেম জাগ্রত হয় এবং লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত জাতীয় পতাকার প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান ফুটে উঠে- সেজন্য লাল ও সবুজ রঙের সমন্বয়ে এক আকর্ষনীয় স্কুল ড্রেসের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে স্কুলের ১০১ জন দরিদ্র শিক্ষার্থীকে সভাপতি আবু নাইম ইকবাল বিনামূল্যে ওই স্কুল ড্রেস প্রদান করেন। এছাড়া বাকী শিক্ষার্থীদেরকে কোন ধরনের চাপ প্রয়োগ ছাড়াই ধীরে ধীরে নতুন ড্রেসের প্রতি উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। তবে এরমধ্যেও কোন শিক্ষার্থী অর্থাভাবে নতুন ড্রেস বানাতে সক্ষম না হলে সভাপতি নিজ অর্থায়নে তা বানিয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছেন। কিন্তু স্থানীয় একটি কুচক্রী মহল স্বাধীনতার পক্ষের এই স্কুল ড্রেসকে মেনে নিতে পারছে না। ফলে তারা এনিয়ে মনগড়া ও বানোয়াট কথা রটাচ্ছে। এ কারনে ১১ জুলাই বৃহস্পতিবার সকালে বিদ্যালয়ের ৩’শ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা সবুজ ও লাল রঙের নতুন স্কুল ড্রেসটি নির্ধারণ করে দেওয়ার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অঞ্জন কুমার সরকারের কাছে লিখিত আবেদন করেন। 
এ প্রসঙ্গে অভিভাবক নুরুন্নাহার, আরজুদা বেগম, আব্দুর আজিজ ও গিয়াসউদ্দিনসহ অন্যান্য অভিভাবকরা জানান, চলতি মাসের ২৭ তারিখে এই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সময় শেষ হবে। এ কারণে স্থানীয় একটি কুচক্রী মহল বিদ্যালয়ের বর্তমান সভাপতি আবু নাইম ইকবালের বদনাম করার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে। অথচ এই আবু নাইম ইকবালের মেধা ও অক্লান্ত পরিশ্রমে বিদ্যালয়টি আজ শিক্ষা ও অন্যান্য দিক থেকে দেশের অন্যতম সেরা বিদ্যালয় হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। এক্ষেত্রে পরিশ্রমী প্রধান শিক্ষক বি আর বিলকিসেরও যথেষ্ঠ অবদান রয়েছে। যার পুরস্কার স্বরুপ আবু নাইম ইকবাল ও বি আর বিলকিস নারায়ণগঞ্জ জেলা ও সোনারগাঁ উপজেলা পর্যায়ে একাধিকবার জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক পেয়েছেন। এছাড়া ২০১৪ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত টানা ৫ বছর এই বিদ্যালয় সোনারগাঁয়ের শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয় হিসেবে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক পেয়েছে এবং ২০১৬, ২০১৭ ও ২০১৮ সালে নারায়ণগঞ্জ জেলার মধ্যে শ্রেষ্ঠ প্রাথমিক বিদ্যালয় হিসেবে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক পেয়েছে।





উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লাল ও সবুজ রঙের স্কুল ড্রেসের দাবি জানিয়ে শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মত রাষ্ট্র নায়ক হতে চাই। তাই আমাদেরকে অন্যান্য বিদ্যালয় থেকে আলাদা বৈশিষ্ট্যের লাল-সবুজের পোশাক পড়ার সুযোগ দিন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অঞ্জন কুমার সরকার জানান, ভট্টপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের স্কুল ড্রেসের বিষয়টি নিয়ে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ এসেছে। এগুলো যাচাই বাছাই করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।






কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭