কমিউনিস্ট পার্টির পদযাত্রায় সরকার বিরোধী শ্লোগান ও পদত্যাগের দাবিতে উস্কানীমুলক বক্তব্যে ছাত্রলীগের বাধাঁ - আজকের সংবাদ

সদ্য পাওয়া

Home Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

Post Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯

কমিউনিস্ট পার্টির পদযাত্রায় সরকার বিরোধী শ্লোগান ও পদত্যাগের দাবিতে উস্কানীমুলক বক্তব্যে ছাত্রলীগের বাধাঁ


কমিউনিস্ট পার্টির পদযাত্রায় সরকার বিরোধী শ্লোগান ও পদত্যাগের দাবিতে উস্কানীমুলক বক্তব্যে ছাত্রলীগের বাধাঁ।





আজকের সংবাদ ডেস্কঃ নারায়নগন্জের সোনারগাঁ উপজেলার পৌরসভা চত্বরে কমিউনিস্ট পার্টির পদযাত্রায় নেতাকর্মীরা মাইকের মাধ্যমে সারাদেশের ন্যায় ১৭ দফা দাবিতে সরকার বিরোধী শ্লোগান ও সরকারের পদত্যাগের দাবিতে উস্কানীমুলক বক্তব্য দেয়ায় কমিউনিস্ট পার্টির পদযাত্রা বন্ধ করে দিয়েছে সোনারগাঁ পৌরসভা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।





শুক্রবার(৬ ডিসেম্বর) বিকেলে সারা দেশের ন্যায় সোনারগাঁয়েও ১৭ দফা দাবীতে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির পদযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।
কমিউনিস্ট পার্টির পদযাত্রা উদ্ধবগঞ্জ থেকে হামছাদী পর্যন্ত পদযাত্রা চলে। পদযাত্রা শেষে কমিউনিস্ট পার্টির নেতাকর্মীরা পৌরসভার সামনে এসে বর্তমান সরকারের পদত্যাগ দাবি করে বিভিন্ন প্রকার সরকার বিরোধী শ্লোগান দেন।
এ সময় পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহবুবুর রহমান রবিন, সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার সাজু ও সাংগঠনিক সম্পাদক নবনুর সাবিক এর নেতৃত্বে অর্ধ শতাধিক নেতাকর্মী তাদের বাঁধা দেয় এবং তাদের মাইক ও ব্যানার ছিনিয়ে নিয়ে নেতাদেরকে লাঞ্চিত করে। খবর পেয়ে সোনারগাঁ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট জিয়া হায়দার ডিপটি জানান, সারা দেশে ১৭ দফা দাবীতে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির পদযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। সোনারগাঁ কমিউনিস্ট পার্টির উদ্যোগে শুক্রবার বিকেলে উদ্ধবগঞ্জ থেকে হামছাদী পর্যন্ত আমাদের পদযাত্রা চলে। সোনারগাঁ পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহবুবুর রহমান রবিন, সাধারণ সম্পাদক সাজু ও যুবলীগ নেতা রনির নেতৃত্বে ১০-১২জনের একটি দল হামছাদী এলাকায় আমাদের পদযাত্রা গতিরোধ করে গালিগালাজ করে আমাদের ব্যবহৃত মাইক কেড়ে নেয়। পরবর্তীতে আমরা চলে আসার সময় পৌরসভার গোল চত্বর এলাকায় দ্বিতীয় দফায় আমাদের ব্যানার কেড়ে নিয়ে মারধর করতে থাকে। এক পর্যায়ে আমাদের ব্যানারে আগুন ধরিয়ে দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আমাদের সহযোগিতা না করে আমাদের কাছ থেকে ছাত্রলীগের কেড়ে নেওয়া মাইক গাড়িসহ আটক করে নিয়ে আসে।
সোনারগাঁ পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহবুবুর রহমান রবিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, কমিউনিস্ট পার্টির নেতাকর্মী মাইকের মাধ্যমে সরকার বিরোধী স্লোগান দিতে থাকে। তাছাড়া বিভিন্ন উষ্কানীমূলক স্লোগানও দেয়। তাই তাদের কাছ থেকে মাইক নিয়ে পুলিশের কাছে তুলে দেওয়া হয়েছে।
সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। পুলিশের তথ্যমতে কমিউনিস্ট পার্টির লোকজন সরকার বিরোধী স্লোগান দেওয়ার কারনে ছাত্রলীগের লোকজন মাইক পুলিশের কাছে তুলে দিয়েছে। তবে কমিউনিস্ট পার্টি যদি অভিযোগ দেয় যাচাই বাছাই করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭