বালু উত্তোলন ও বালু মহাল বন্ধের জন্য জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে এমপির ডিও লেটার - আজকের সংবাদ

সদ্য পাওয়া

Home Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

Post Top Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭

সোমবার, ২ ডিসেম্বর, ২০১৯

বালু উত্তোলন ও বালু মহাল বন্ধের জন্য জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে এমপির ডিও লেটার


বালু উত্তোলন ও বালু মহাল বন্ধের জন্য জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে এমপির ডিও লেটার





আজকের সংবাদ ডেস্কঃ নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা সোনারগাঁয়ের মেঘনা নদী থেকে বালু উত্তোলন ও বালু মহাল বন্ধের জন্য জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে ডিও লেটার দিয়েছেন।





গত ২৬ নভেম্বর প্রশাসক ও ২৮ নভেম্বর পুলিশ সুপার বরাবর এ ডিও লেটার প্রদান করেন তিনি।





ডিও লেটারে উল্লেখ,দীর্ঘদিন ধরে মেঘনা নদীর আনন্দবাজার ও নুনেরটেক এলাকা থেকে বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ইসমাইল মেম্বারের নেতৃত্বে নজরুল,আল-আমিন ও এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও নৌ-চাঁদাবাজরা নুনেরটেক এলাকার মেঘনা নদীর তীর ঘেঁষে ৮/১০টি শক্তিশালী ড্রেজার দিয়ে রাতদিন অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করে আসছে। আনন্দবাজার এলাকার মেঘনা নদীর ইজারাদারাও তাদের পয়েন্টে বালু উত্তোলন না করে রাতের আধারে নুনেরটেক(মায়াদ্বীপ) এলাকায় তীর ঘেষে বালু উত্তোলন করে আসছে। অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ফলে ১৮ হাজার লোকের জন বসতী দ্বীপটির পৈত্রিক বসত ভিটা নদী গভের্ বিলিন হচ্ছে। অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনের ফলে সরকার হারাচ্ছে রাজস্ব। ওই দ্বীপের মানুষগুলো গরীব ও অসহায় হওয়ায় আমি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই ওই এলাকার রাস্তা ঘাট ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। নুনেরটেকের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন সংস্থা কাজ করার জন্য অগ্রসর হচ্ছে। কিন্তু এ ভাবে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন অব্যাহত থাকায় সংস্থা গ্রলো আগ্রহ হারাচ্ছে। যে কোন সময় সোনারগাঁওয়ের মানচিত্র থেকে বিলিন হয়ে যেতে পারে বারদী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডটি। তাই জন সার্থে অবৈধ বালুহমাল বন্ধের ব্যবস্থা গ্রনের দাবী জানিয়েছেন।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৯২৬৮৭০৭২৭